বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে গ্লোবাল খুলনার মতবিনিময়

সারাদেশ

খুলনা বিভাগের অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান সমূহের অভিভাবক বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মোঃ ওবায়দুল হকের সাথে রবিবার বেলা ১ টায় সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেছেন গ্লোবাল খুলনার আহবায়ক শাহ মামুনুর রহমান তুহিন। এ সময়ে তার সাথে ছিলেন দৈনিক কালান্তর পত্রিকার বার্তা সম্পাদক বেলাল হোসেন সজল।

মতবিনিময়ে গ্লোবাল খুলনার আহবায়ক বিভিন্ন ব্যাংকে গ্রাহক হয়রানী, বিভিন্ন উৎসে টাকা কর্তন, গ্রাহক হয়রানী এড়াতে সরকারি/বেসরকারি ব্যাংক গুলিতে ওয়ান ষ্টপ সার্ভিস প্রণয়নের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এছাড়া পাটের বিভিন্ন অনাদায়ী লোন সহ আর্থিক বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে তিনি কথা বলেন। তিনি বিশেষ ভাবে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, করোনা মহামারী এবং বিভিন্ন কারণে এই বিভাগের অনেক কৃষক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সংশ্লিষ্ট ব্যাংক সমূহের সাথে কথা বলে ছোট লোন গুলির সুদ মওকুফ করে কৃষক, মৎসজীবি, ছোট ব্যবসায়ীদেরকে বাচানোর আহবান জানান। সাধারণত দেখা গেছে, বড় ব্যবসায়ীদের বড় বড় লোন গুলি সবথেকে বেশী অনাদায়ী থাকে এবং এই সমস্ত অর্থ পাচার হয় বেশী। পক্ষান্তরে তারা সবাই প্রভাবশালী হওয়ায় তাদেরকে অধিকাংশ সময়ে শাস্তির আওতায় আনা সম্ভব হয়না, বিশেষ ব্যাতিক্রম ছাড়া। অপরদিকে বাংলাদেশের কৃষক, মৎসজীবি, ছোট ব্যবসায়ীরা কিন্ত অল্প লোন গ্রহণ করে এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেটা শোধ করে দেয়। তাই এই খাতে বেশী করে নজর দেয়া এবং তাদেরকে উৎসাহিত করার জন্য পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানানো হয়।

নির্বাহী পরিচালক মহোদয় খুব মনোযোগ দিয়ে শোনেন এবং প্রয়োজনীয় নোট নিয়ে নেন। তিনি আশ্বস্ত করেন, খুব দ্রুতই সকল ব্যাংকের সাথে বসে এ বিষয়গুলি নিয়ে কথা বলবেন। তিনি আরও আশ্বস্ত করেন, তিনি যোগদানের পরে, ইতিমধ্যেই সোনালী ব্যাংকে ঝটিকা সফর করেছেন, পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে যাবেন এবং বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেন। তিনিও একমত হয়েছেন, কৃষক এবং ছোট ব্যবসায়ীদের বাচাতে হবে, তাহলেই দেশ শক্তিশালী হবে, অর্থনীতি মজবুত হবে, দেশ এগিয়ে যাবে। তিনি গ্লোবাল খুলনার আহবায়ককে ধন্যবাদ জানান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য।

1 thought on “বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে গ্লোবাল খুলনার মতবিনিময়

কমেন্ট করুন